সেই ঘরে [রহমতের] ফিরিশতা প্রবেশ করেন না যে ঘরে কুকুর থাকে এবং সে ঘরেও নয় যে ঘরে (প্রাণ আছে এমন যেকোন মানুষ বা প্রাণীর) ছবি থাকে

 

আমরা প্রায় সবাই নিমোক্ত হাদিস গুলো জানি তবে মাঝে মাঝে আমাদের জানতে বা অজান্তে সুক্ষ্ম দৃষ্টিকোণ থেকে এই হাদিস গুলোর উপর আমাদের খেয়াল থাকে না। অনেকে আবার বিভিন্ন যুক্তি দিয়ে ঘরে প্রাণী বা মানুষের ছবি রাখেন। যা-ই হোক, আমি আপনাদের নিজ কল্যাণের জন্য অনুরোধ করছি যে, নিম্নোক্ত হাদিস গুলো পড়ার পর আপনারা নিজে একটু ঘরে খেয়াল করে দেখবেন। যদি না থাকে তবে তো আলহামদুলিল্লাহ।

আবূ ত্বালহা রা: হতে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, ‘‘সেই ঘরে [রহমতের] ফিরিশতা প্রবেশ করেন না যে ঘরে কুকুর থাকে এবং সে ঘরেও নয় যে ঘরে (প্রাণ আছে এমন যেকোন মানুষ বা প্রাণীর) ছবি থাকে।’’ বুখারী ৩২২৫, ৩২২৬, ৩৩২২, ৪৩০২, ৪০০২, ৫৯৪৯, ৫৯৫৮, মুসলিম ২১০৬, তিরমিযী ২৮০৪, নাসায়ী ৪২৮২, ৫৩৪৭-৫৩৫০, আবূ দাউদ ৪১৫৩, ৪১৫৫, ইবনু মাজাহ ৩৬৪৯, আহমাদ ১৫৯১০, ১৫৯১৮, ১৫৯৩৪, মুয়াত্তা মালিক ১৮০২

ইবনে উমার রা: হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, [একবার] জিব্রীল আ: রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম -এর নিকট আসার ওয়াদা দিলেন। কিন্তু তিনি আসতে বিলম্ব করলেন, এমনকি শেষ পর্যন্ত [এ বিলম্ব] নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম -এর পক্ষে অত্যন্ত ভারী বোধ হতে লাগল। অবশেষে তিনি বাইরে বের হয়ে গেলেন। তখন জিব্রীল আ: তাঁর সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন। তিনি বিলম্ব হওয়ার অভিযোগ করলে জিব্রীল আ: বললেন, ‘আমরা সেই ঘরে প্রবেশ করি না যে ঘরে কুকুর বা ছবি থাকে।’ বুখারী ৫৯৬৬০, ৩২২৭।

Share this Post
Scroll to Top