সালাত পড়ে না এমন পাত্র

সালাত পড়ে না এমন পাত্র
==================
প্রশ্নঃ আমার মেয়ের বিবাহের জন্য পাত্র দেখেছি। পাত্র আমার বন্ধুর ছেলে। পাত্র আমার পছন্দ হয়েছে; কিন্তু সে নিয়মিত নামাজ আদায় করে না। এমন ছেলের সাথে আমার মেয়ের বিবাহ দেওয়া ঠিক হবে কি? বি:দ্রঃ আমি আশা করি বয়স হলে সে ঠিকই নিয়মিত নামাজ আদায় করবে, যেহেতু আমার বন্ধু নামাজী!
.
■উত্তরঃ
আপনার সর্বশেষ লাইন পড়ে খুব হাসি পেলো। আপনি লিখেছেন সময় হলে সে ঠিকই নিয়মিত সালাত আদায় করবে। আপনার প্রতি আমার জিজ্ঞাসা আপনার ঐ হবু মেয়ের জামাইয়ের বিয়ের বয়স হয়েছে, আর সালাতের বয়স কি এখনও হয় নাই?
.
আপনার প্রশ্নের উত্তর শাইখ মুহাম্মাদ বিন সালিহ আল-উসাইমীন এর ফতোয়ার কিতাব থেকে হবুহু তুলে ধরলাম!
!
কোন নারী যদি এমন লোককে বিবাহ করে, যে সালাত আদায় করে না, জামাআতের সাথেও না বাড়ীতেও একাকি না। তার বিবাহ বিশুদ্ধ নয়। কেননা সালাত পরিত্যাগকারী মুসলীম থাকতে পারে না। যেমনটি আল্লাহর সম্মানিত কিতাব, পবিত্র সুন্নাত ও ছাহাবায়ে কেরামের উক্তি সমূহ একথাটি প্রমাণ করে। আবদুল্লাহ্‌ বিন শাক্বীক্ব বলেন,
كَانَ أَصْحَابُ مُحَمَّدٍ صَلَّى اللَّه عَلَيْهِ وَسَلَّمَ لَا يَرَوْنَ شَيْئًا مِنَ الْأَعْمَالِ تَرْكُهُ كُفْرٌ غَيْرَ الصَّلَاةِ
-নবী ﷺ সাহাবীগণ সালাত ব্যতীত কোন আমল পরিত্যাগ করার কারণে কাউকে কাফের মনে করতেন না।
.
কাফেরের জন্য কোন মুসলিম নারী বৈধ নয়। আল্লাহ্‌ বলেন,
فَإِنْ عَلِمْتُمُوهُنَّ مُؤْمِنَاتٍ فَلَا تَرْجِعُوهُنَّ إِلَى الْكُفَّارِ لَا هُنَّ حِلٌّ لَهُمْ وَلَا هُمْ يَحِلُّونَ لَهُنَّ
-যদি তোমরা জান যে, তারা ঈমানদার, তবে আর তাদেরকে কাফেরদের কাছে ফেরত পাঠিও না। এরা কাফেরদের জন্য হালাল নয় এবং কাফেররা এদের জন্য হালাল নয়। [সূরা মুমতাহিনাঃ ১০]
.
বিবাহের চুক্তি সম্পন্ন হওয়ার পর যদি স্বামী সালাত পরিত্যাগ করা শুরু করে তবে তওবা করে ইসলামে ফিরে না আসলে তার বিবাহ ভঙ্গ হয়ে যাবে। কতক বিদ্বান বলেছেন, বিবাহ ভঙ্গের বিষয়টি ঈদ্দতের সাথে সম্পৃক্ত। যদি ঈদ্দত পার হয়ে যায় তারপর সে তওবা করে ইসলামে ফিরে আসে তবে নতুন চুক্তি করে আবার উক্ত স্ত্রীকে ফেরত নিতে পারবে। উক্ত মহিলার জন্য আবশ্যক হচ্ছে সালাত না পড়া স্বামী থেকে আলাদা থাকবে। তাকে মেলামেশা করতে দিবে না- যতক্ষণ না সে তওবা করে সালাত আদায় করে। যদিও তাদের সন্তান থাকে। কেননা এ অবস্থায় পিতার কোন অধিকার নেই সন্তানদের প্রতিপালনের।
.
এ উপলক্ষে আমি মুসলিম ভাইদেরকে সতর্ক করছি ও নসীহত করছি, তারা যেন সালাত পড়ে না এমন ছেলের সাথে মেয়েদের বিবাহ সম্পন্ন না করেন। কেননা বিষয়টি অত্যন্ত ভয়ানক। এক্ষেত্রে তারা যেন নিকটাত্মীয় বা বন্ধুর সাথেও কোন আপোষ না করেন।
.
(আল্লাহ্‌ই অধিক জ্ঞাত আছেন)
________________
লেখক/সংকলকঃ শাইখ মুহাম্মাদ বিন সালিহ আল-উসাইমীন (রহঃ)
গ্রন্থঃ ফাতাওয়া আরকানুল ইসলাম
বিভাগঃ সালাত
প্রশ্ন নং ১৯২

Share this Post
Scroll to Top