সালাতরত অবস্থায় পায়ুপথে বাতাস বের হওয়ার উপক্রম হলে কী করণীয়

প্রশ্ন: সালাতরত অবস্থায় পায়ুপথে বাতাস বের হওয়ার উপক্রম হলে কী করণীয়? তা কি চেপে রেখে সালাত আদায় করা; নাকি সালাত ছেড়ে দিয়ে ওযু করে নতুন করে সালাত পড়া?
——————–
উত্তর প্রদানে: আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল
জুবাইল, সৌদি আরব।

উত্তর: সালাতরত অবস্থায় পায়ুপথে বাতাস বের হওয়ার উপক্রম হলে, তা চেপে রেখে সালাত আদায় করলে সালাতে মনোযোগ বিঘ্নিত হবে এবং খুশু-খুযু নষ্ট হবে তাতে কোন সন্দেহ নাই। তাই এ অবস্থায় করণীয় হল, সালাত ছেড়ে দিয়ে চাপমুক্ত হয়ে পূনরায় ওযু করে সালাত আদায় করা। এতে জামাআত ছুটে গেলেও আপত্তি নেই।

হাদীসে পেশাব ও পায়খানার বেগ নিয়ে সালাত আদায় না করার ব্যাপারে একাধিক নির্দেশনা এসেছে। যেমন,
 হাদীসে বর্ণিত হয়েছে:
نهى رسول الله صلى الله عليه وسلم أن يصلي الرجل وهو حاقن
“রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম পেশাব-পায়খানা আটকে রেখে সালাত আদায় করা থেকে নিষেধ করেন”। [ইবনু মাজাহ্‌, হাদিস নং ৬১৭। সহীহুল জামে‘, হাদিস: ৬৮৩২।]

হাদীসে উল্লেখিত হাকেন (حَاقِن) শব্দের অর্থ: পেশাব বা পায়খানার বেগ হলে তা আটকে রাখা। এটা নিষেধ।
তিনি আরও বলেন,
«إذا أراد أحدكم أن يذهب الخلاء وقامت الصلاة فليبدأ بالخلاء».
“যখন তোমাদের কেউ পায়খানায় যেতে চায় এবং সালাতের একামত হয়, তখন সে প্রথমে পায়খানা সেরে নেবে”। [আবু দাউদ, হাদিস: ৮৮। সহীহুল জামে‘, হাদিস: ২৯৯।]
 তিনি আরও এরশাদ করেন:
«لا صلاة بحضرة طعام ولا وهو يدافعه الأخبثان»
“খাবারের উপস্থিতিতে কোনো সালাত নেই এবং পায়খানা ও পেশাবের চাপ থাকা অবস্থায়ও সালাত নেই”।[মুসলিম, হাদিস: ৫৬০।]
আল্লাহু আলাম।

Share this Post
Scroll to Top