চুল রঙ করা কি ইসলামে জায়েজ আছে?

অতএব উক্ত মহিলার জন্য চুলে কালো কলপ ব্যবহার করা জায়েজ নয়। তবে মেহেদী রং করতে পারবেন। [শরহু মুসলিম, নববী ১৪/৮০; তাকমিলা, ফাতহুল মুলহিম ৪/১৪৯; মিরকাতুল মাফাতীহ ৮/২৯৪; রদ্দুল মুহতার ৬/৭৫৬; আলমুগনী ১/১২৭]
বয়সের কারণে চুল সাদা হলে কালো কলপ ব্যবহার করা জায়েজ নয়। হাদীস শরীফে আছে, হযরত জাবির ইবনে আবদুল্লাহ রা. বলেন, মক্কা বিজয়ের দিন আবু কুহাফা রা. (আবু বকর রা.-এর পিতা) রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর নিকট আসলেন। তখন তার মাথার চুল ও দাঁড়ি ছিল ‘ছাগামা’ নামক উদ্ভিদের ফুলের মতো তীব্র সাদা। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তা দেখে বললেন,তোমার এই চুল ও দাঁড়ির শুভ্রতা কোনো কিছু দ্বারা পরিবর্তন কর। তবে তোমরা কালো কলপ ব্যবহার করা থেকে বিরত থাক। (সহীহ মুসলিম, হাদীস : ৫৪৬৬)\অন্য হাদীসে আছে, রাসূলে কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন, আখেরি যামানায় কিছু লোক কবুতরের বুকের মতো কালো রংয়ের কলপ ব্যবহার করবে। তারা জান্নাতের খোশবুও পাবে না। (সুনানে আবু দাউদ, হাদীস : ৪২০৯)
অতএব উক্ত মহিলার জন্য চুলে কালো কলপ ব্যবহার করা জায়েজ নয়। তবে মেহেদী রং করতে পারবেন। [শরহু মুসলিম, নববী ১৪/৮০; তাকমিলা, ফাতহুল মুলহিম ৪/১৪৯; মিরকাতুল মাফাতীহ ৮/২৯৪; রদ্দুল মুহতার ৬/৭৫৬; আলমুগনী ১/১২৭]
মেয়েদের জন্য সর্ব প্রকার সাজই জায়েজ আছে। যদি তা কোন খারাপ উদ্দেশ্য না হয় বা শরীয়তে নিষিদ্ধ সাজ না হয়। স্বামীকে খুশি করার জন্য চুলে মেহেদী দেয়া বা কালো ছাড়া অন্য রং করা মহিলাদের জন্য জায়েজ আছে। কোন সমস্যা নেই। তবে যদি পর-পুরুষকে দেখানোর জন্য হয়,তাহলে জায়েজ নেই। চুলে দাড়িতে খেজাব দেয়া মুস্তাহাব। লাল ও হলুদ এবং এমন লাল খেজাব যা কিছুটা কালোর দিকে ধাবিত এমন খেজাব লাগানো জায়েজ পুরুষ মহিলা উভয়ের জন্য। তবে কালো খেজাব মুজাহিদ ব্যতিত অন্য কারো জন্য জায়েজ নয়।
————————–————————–—-
• Present by – Bayzid Bin Osman
Share this Post
Scroll to Top