অনলাইনে ইসলাম প্রচার

“অনলাইনে ইসলাম প্রচার”
__________
.
অনেক বছর ধরে ইন্টারনেটের বিভিন্ন সাইট অথবা ব্লগ পড়ে কিংবা ফেসবুক চালিয়ে এটা বুঝে গেছি যে, ইসলামিক পোষ্টগুলোর রিচ হয় কম, তার চেয়ে কম মানুষ পড়ে, তার চেয়ে কম মানুষ পছন্দ করে, তার চেয়ে কম মানুষ উৎসাহমূলক কিংবা গঠনমূলক মন্তব্য করে, তার চেয়ে কম মানুষ শেয়ার করে অথবা কপি করে ছড়িয়ে দেয়, তার চেয়ে কম মানুষ ২৪ ঘণ্টা পার হবার পরেও শিক্ষাটা মনে রাখে আর সবশেষে তার চেয়েও কম মানুষ আমল করে এবং মানুষের কাছে পৌঁছে দেয় ! আর তাছাড়া নির্ভরযোগ্য লেখার সংখ্যাও খুবই কম। যে, যা বুঝে, সে, তাই লেখে। অনলাইনে কুরআন-হাদিসের ধার, খুব কম মানুষই ধারে। বেশীরভাগ মানুষের ভাবভঙ্গী হচ্ছে, “আরেহ ! আমি কি কম জানি নাকি !”
.
তাহলে কোন পোষ্টগুলোর রিচ বেশী হয় ? উত্তর হচ্ছে লিংক টাইপের, একি করল অমুক, প্রেমের ফাঁদে পড়ে ভিডিও বের হলো তমুকের, ভালোবাসার কাছে আসার সাহসী গল্পগুলোর। যে গল্পগুলো প্রকৃতপক্ষে যিনার গল্প। রসিয়ে রসিয়ে লেখা প্রেমের গল্প, আবেগ অনুভুতির গল্প ইত্যাদি। নাস্তিকের পোষ্টগুলোরও রিচ ভালো হয়। সেখানে সমানে চলে গালিগালাজ, নাস্তিকরাও গালি দিচ্ছে, আস্তিকরাও যেন সমান তালে জবাব দিচ্ছে, এদিকে পাঠক সমাজ বিব্রত এবং বিভ্রান্ত হচ্ছে। জ্ঞান অর্জন করতে হলে বই পড়ুন, ব্লগ নয়, ফেসবুক নয়। কথার মারপ্যাঁচে কখন আপনার ঈমানটা ফুড়ুৎ হয়ে যাবে, টেরও পাবেন না ! কুরআনের কাছে আসুন, হাদিসের বই পড়ুন। কিছু বুঝতে না পারলে আলেমের কাছে বুঝিয়ে নিন, মূর্খের কাছে নয়।
.
কথাগুলোর মধ্যে কোথাও হয়ত একটা হতাশার ছাপ লুকায়িত আছে কিন্তু এটার মধ্যে একটা গুঢ় শিক্ষাও আছে যা কিনা সবাই ধরতে পারবে না। সেই শিক্ষাটা হলো মূল্যবান বস্তু সবাই লাভ করতে পারেনা এটাই স্বাভাবিক আর সহজে লাভ করে ফেললেও বেশীরভাগ মানুষই এর মূল্য দিতে পারেনা। রাস্তার খাবার সবাই কিনে খেতে পারে কিন্তু ফাইভ স্টার হোটেলে খেতে পারে কয়জন ? তেমনি ইসলামের মূল্যও আমরা দিতে পারি না, যে কারণে আমাদের অবস্থাও ঐ রাস্তার খাবারের মতই মূল্যহীন অথবা সল্পমূল্য। হুমায়ন আহমেদের মত লেখকদের সস্তা লেখা যতজন মানুষ পড়ে তার তুলনায় ইমাম বুখারী রাহিমাহুল্লার লেখা কয়জন মানুষ পড়ে ? মাইন্ড করলেন ? আচ্ছা বাদ দেন, নজরুল কিংবা রবীন্দ্রনাথ কয়জন পড়ে ?
.
আমাদের ইসলামিক জ্ঞান, এই হিজাব পরিহিতা বোনের জন্য কয়টি লাইক, অমুক ইসলামিক ব্যাপারে একমত হলে লাইক দিন, তমুক সেলিব্রেটি হজ্জে গেলেন, উনার জন্য কয়টি লাইক ইত্যাদি পর্যন্তই সীমাবদ্ধ ! বেশীরভাগ ১৮+ পেজগুলো থেকে আসে এধরণের পোষ্ট। এরকম পোষ্ট একটা দেয়ার পরের পোষ্টেই হয়ত নগ্ন নারীর ছবি ! রেডিও নামযুক্ত সকল পেজ পরিহার করুন। যারা ধর্মের নামে অপপ্রচার করে লাইক ভিক্ষা করে তাদেরকে পরিহার করুন। অনলাইনে সারাদিন পড়ে না থেকে বাসায় যে কুরআনটা আছে, ৫ মিনিটের জন্য হলেও খুলুন। এসব অনলাইনের জ্ঞান খুব কমই কাজে আসে।
.
হাজার লাইকের মধ্যে কোন সফলতা নেই, সফলতা আছে যদি একজন মানুষকে আল্লাহর অভিমুখী করার উসিলা হওয়া যায়। আল্লাহ আমাদেরকে যেন মুসলিম হিসেবে কবুল করে নিন, আমীন।

▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂
.
লেখাঃ হাসান জাহিদ (আল্লাহ তাকে উত্তম প্রতিদান দান করুন!)
.
.
_
ওহী (The Way To Enter Jannah)

Share this Post
Scroll to Top