যে ৭ টি কারনে মানুষ হেদায়েত পায় না

১-জাহালত বা মুর্খতা অর্থাৎ দীনের ব্যাপারে উদাসীন

২- তাকলীদে আমা অর্থাৎ বাপ দাদাদের অনুসরণ, রসম রেওয়াজের অনুসরণ, সামাজিক প্রথার অনুসরন। ছেলেমেয়ের বিয়েতে অসংখ্য হারাম কাজ

৩-দলবাজি বা ফিরকাবাজি

৪- হিংসা বা অহংকার।
যেমন ফেরাউন, আবু জাহেল, আবু লাহাব, ইবলিস হেদায়েত পায়নি তার অহংকারের জন্য। ইবলিস যুক্তি দেখিয়েছিলো। অথচ আল্লাহর নির্দেশের কাছে যুক্তির স্থান নেই। অহীর নির্দেশের কাছে যুক্তি বাতিল।

৫-আহবার অর্থাৎ বেশী এলেম ওয়ালা বড় বড় আলেম ও রুহবান অর্থাৎ বেশি আমল ওয়ালা,ইলেম কম এমন ব্যক্তি যেমন দরবেশ বা তাকওয়াবান ব্যক্তি। এদের অনুসরণ করতে হবে কিন্তু যদি আপনি বিদাতি আহবার ও রুহবানের অনুসরণ করেন তবে হেদায়েত পাওয়া যাবে না।

৬- অন্তরের বক্রতা, যা কলবের একটি রোগ।
অন্তর বাকা হওয়ার লক্ষন হলো কাউকে সোজা ভাবে কিছু বললে সে তা বাকা ভাবে নেয়।

এর থেকে পানাহ চাইতে আল্লাহ সুরা আলে ইমরানের আয়াত ৮ এ একটি দুয়া শিক্ষা দিয়েছেন।

অন্তরের বক্রতা হতে মুক্তি চাওয়া*

رَبَّنَا لاَ تُزِغْ قُلُوبَنَا بَعْدَ إِذْ هَدَيْتَنَا وَهَبْ لَنَا مِن لَّدُنكَ رَحْمَةً إِنَّكَ أَنتَ الْوَهَّابُ
*হে আমাদের রব, আপনি হিদায়াত দেয়ার পর আমাদের অন্তরসমূহ বক্র করবেন না এবং আপনার পক্ষ থেকে আমাদেরকে রহমত দান করুন।*
*রব্বানা-লা-তুযিগ্ কুলূবানা- বা’দা ইয্ হাদাইতানা-অহাবলানা-মিল্ লাদুন্কা রহমাহ , ইন্নাকা আন্তাল্ অহ্হা-ব্*

৭- ইত্তেবাউল হাওয়া অর্থাৎ প্রবৃত্তির অনুসারী। হাওয়া মানে কু- প্রবৃত্তি। নিজের মন গড়া পদ্ধতির অনুসারী।
কুরান-হাদিসের পদ্ধতির অনুসরণ করে না।
রাসুল সা: বলেছেন যে ব্যক্তি আমি যা নিয়ে এসেছি তার অনুসরণ করবে না ততক্ষণ সে হেদায়েত পাবে না। ততক্ষন সে ঈমান্দারই হতে পারবে না।

এই ৭ টি বড় বড় দোষ থেকে আমরা মুক্ত হতে পারলে ইনশা আল্লাহ আমরা হেদায়েত পাবো
আল্লাহ সুবাহানাহু তালা আমাদের সবাইকে এই ত্রুটি গুলি থেকে মুক্ত করুন।

~শাইখ ইমাম হোসেন।।

Share this Post