ফক্বিহ / মোহাদ্দিস

••• ফক্বিহ / মোহাদ্দিস •••

*** ঐতিহাসিক আলেম- উলামাদের মধ্যে এ শব্দ দুটো ব্যাপকভাবে সুপ্রসিদ্ধ ।

পবিত্র কুরআন ও সুন্নাহ থেকে উভয়ের সমন্বয় ঘটানোর মাধ্যমে দৃশ্যমান কোন বিরোধের নিখুঁত সমাধান বের করতে গিয়ে যে শাস্ত্রের উৎপত্তি , তার নাম হলো ফিক্বহ ( فقه ) এবং এ জ্ঞান যাঁর মধ্যে রয়েছে তাঁকে ফক্বিহ ( فَقِيه ) বলা হয় । মহানবী সা : বলেছেন , যার প্রতি আল্লাহপাক ইচ্ছাপোষণ করেন , ধর্মের মধ্যে ফক্বিহ বানিয়ে দেন ।”
و من يرد الله يفقه في الدين .
এ শব্দের বহু বচন হলো فقهاء
ইসলামের ইতিহাসে এরাই হচ্ছেন শ্রেষ্ঠ সন্তান । সকল সাহাবীগণ রা: ফক্বিহ ছিলেন না । এ কথাটা কান খোলা রেখে মনে রাখবেন । তাঁরা সকলে ইনসাফদার ছিলেন । সকল সাহাবী রা: কখনো সাইয়্যিদুনা আবু বকর রা: , ওমর রা: , আব্দুল্লাহ ইব্নে আব্বাস রা: কিংবা আব্দুল্লাহ ইব্নে ওমর রা: হতে পারবেন না । এ সকল কৃতি সন্তানগণ ছিলেন ইসলামের ইতিহাসে শ্রেষ্টতম ফক্বিহ ।

*** মোহাদ্দিস বা হাদিস বিশারদ । ইহাও অনেক বড় যোগ্যতা । তবে মোহাদ্দিস হয়ে যাওয়া মানেই ফক্বিহ হয়ে যাওয়া নয় । একজন আলেম একইসঙ্গে মোহাদ্দিস ও ফক্বিহ ” দুটো’র অধিকারী হতে পারেন । তবে সংখ্যাটা খুবই কম । সবাই চায়লে প্রখ্যাত ইমাম আবু হানিফা রহ: কিংবা ইমাম বোখারি রহ: হতে পারবেন না । ইহা কখনো সম্ভব নয় ।

*** খ্যাতনামা স্কলার মুহতরম ড. জাকের নায়েক সাহেবকে আপনি মোহাদ্দিস বলতে পারেন । তবে ফক্বিহ বলা যাবেনা । শায়খ নাসিরুদ্দিন আলবানী রহ: অন্যতম সুপ্রসিদ্ধ মোহাদ্দিস হওয়া সত্ত্বেও ফিক্বহ সংক্রান্ত মাসআলার ফতওয়া প্রদানের ক্ষেত্রে শায়খ আব্দুল্লাহ বিন বা’য রহ:কে দায়িত্ব দেয়া হয়েছিলো ।

*** একজন মোহাদ্দিসের জন্য ফক্বিহ হওয়া জরুরী নয় । কিন্তু একজন ফক্বিহের জন্য মোহাদ্দিস হওয়া অপরিহার্য ।

*** আপনার ব্যক্তিগত জীবনের যে কোন সমস্যার হুবহু চিত্র কুরআন ও হাদিসে পাওয়াটা জরুরী নয় । এসব সমস্যার সমাধান কল্পে ফিক্বহ শাস্ত্রের জ্ঞান অত্যাবশ্যক ।

*** ফক্বিহ ” কুরআন – সুন্নাহ বহির্ভূত কোন বিষয় নয় । বরং কুরআন – সুন্নাহ থেকে নির্গত একটি হ্যান্ডনোট ।

 

>>>কৃতজ্ঞতাঃ- Mqm Saifullah Mehruzzaman<<<

Share this Post
Scroll to Top