একজন প্রকৃত মুসলিম হবার জন্য কিন্তু এখনো ততটা দেরী হয় নি!!! ফিরে আসুন আপনার রবের দিকে!!!

অনেকেই ভাল হবার চেষ্টা করছেন, প্রতিদিন ভাবছেন কি করে ভাল হওয়া যায়, খাঁটি মুমিন/মুমিনা হতে চাইছেন কিন্তু দিন শেষে ফলাফল জিরো; যার কারনে ব্যর্থতা, হতাশা নিজেকে কুড়েকুড়ে খাচ্ছে।
.
“ওমুক ভাই/বোন কত দ্বীনদার, কত জ্ঞানী আর আমি কিছুই করতে পারছিনা, কিছুইনা!”
” ওমুক কত আমল করে আর আমি পারিনা”
এই ধরনের গ্লানিবোধ আপনাকে আরো হতাশ করে দিচ্ছে ?
.
তবে জেনে রাখুন, আল্লাহ্ বলেছেন আল্লাহর রহমত থেকে কখনও নিরাশ না হতে।
হচ্ছেনা বলে হবেনা এই মানসিকতা দূর করুন।
হ্যাঁ হয়তো আজ হচ্ছে না, কাল হচ্ছে না, বারবারই হচ্ছে না, কিন্তু যে হবেনা তা আপনাকে কে বললো?
চেষ্টা করুন, বারবার চেষ্টা করুন, হয়তো ব্যর্থ হয়ে পড়ে যাবেন, আবার উঠে দাঁড়ান, বারবার উঠার চেষ্টা করুন কিন্তু হাল ছাড়বেন না।
.
আল্লাহর কাছে কান্নাকাটি করে চান ” হে আল্লাহ্, আমি ভাল হতে চাই, খাঁটি মুমিন হতে চাই, আমাকে খাঁটি মুমিন বানিয়ে দাও”
.
শুধু চাইলেই হবেনা, নিজেকেও ভাল হবার চেষ্টা করতে হবে। একটা রুটিন তৈরি করুন; প্রতিদিন নির্দিষ্ট কিছু ভাল কাজের লিস্ট তৈরি করুন, উহুঁ পরে করবো বললে হবেনা, এখনই এই মুহূর্তে রুটিন বানিয়ে ফেলুন, সাধ্যের অতিরিক্ত নিবেন না, ফরজ কাজের সাথে অল্প কিছু আমল দিয়েই নাহয় প্রথম প্রথম শুরু করুন, পরে আস্তে আস্তে বাড়াবেন ইন-শা-আল্লাহ্ , ঐ নির্দিষ্ট কাজগুলো প্রতিদিন করার চেষ্টা করুন, মনে রাখবেন আল্লাহ নিয়মিত আমল পছন্দ করেন, দিনশেষে চেক করুন যা লিখেছিলেন সবগুলো করা হয়েছে কিনা।
.
আর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় কাজগুলো করার আগে অন্তরের নিয়ত ঠিক করুন, মনে মনে নিয়ত করুন ” আমি কাজটা শুধুমাত্র আল্লাহ্ কে সন্তুষ্ট করার জন্যই করছি”
.
অনেকেই জানেন গীবত/ পরনিন্দা করা নিষেধ, কিন্তু কেউ করলে নিষেধ করতে পারছেন না, বা অনেকেই আছেন যারা পাপ জানার পরও বিরত থাকতে পারছেন না, হয়তো চেষ্টা করছেন কিন্তু শয়তান বারবার আপনাকে হারিয়ে দিচ্ছে। হতাশ হবেন না, চেষ্টা করুন, মনে রাখবেন আপনি যখন ভাল হবার চেষ্টা করবেন তখন শয়তানও আপনার পিছে বেশী করে লাগবে যাতে আপনি ভাল না হতে পারেন, আপনি হতাশ হয়ে চেষ্টা করা ছেড়ে দিলে শয়তান জিতে গেল। শয়তান তো চায় আপনি হতাশ হয়ে ভাল কাজ করা ছেড়ে দেন।
.
কাজেই যতই ব্যর্থ হোন না কেন, যতবার পা পিছলে পড়ে যান না কেন, হতাশ হবেন না, ভাল হবার চেষ্টা চালিয়ে যান, আপনার চেষ্টাটাই আল্লাহ্ দেখবেন, ইন-শা-আল্লাহ্ একদিন আপনি ঠিক জয়ী হবেন, আল্লাহর উপর ভরসা রাখুন।

 

লেখা – সাবরীনা সুলতানা

Facebook Page : সালাত

Share this Post
Scroll to Top